সম্পর্কে ফাটলের ‘মিথ্যা’ খবরের নিন্দায় প্রিন্স উইলিয়াম-হ্যারি

2320

ব্রিটিশ রাজপরিবারে বুলিংয়ের কারণে দুই ভাইয়ের সম্পর্কে ফাটলের খবর ‘মিথ্যা’ বলে উড়িয়ে দিয়ে যে ভাষায় এটি লেখা হয়েছে তার নিন্দা করেছেন প্রিন্স হ্যারি এবং উইলিয়াম।
বড় ভাই ডিউক অব কেমব্রিজ উইলিয়ামের বিরূপ মনোভাবের কারণে হ্যারির সঙ্গে সম্পর্ক নষ্ট হয়েছে বলে টাইমস পত্রিকায় প্রকাশিত খবর এক যৌথ বিবৃতিতে অস্বীকার করেছেন দুই ভাই। রাজপারিবারে তাদের সম্পর্কের বিষয়টি নিয়ে উস্কানিমূলক’ এবং ‘আক্রমণাত্মক’ কথা লেখা হয়েছে বলে বর্ণনা করেছেন উইলিয়াম ও হ্যারি।

গত ৯ জানুয়ারি আচমকাই ব্রিটিশ রাজ পরিবারের জ্যেষ্ঠ সদস্যের দায়িত্ব থেকে সরে এসে আর্থিকভাবে স্বনির্ভর হওয়ার জন্য কাজ করার ঘোষণা দেন প্রিন্স হ্যারি এবং তার স্ত্রী মেগান মার্কল উইলিয়ামের কাছ থেকে অনবরত উত্যক্ত হওয়ার কারণে হ্যারি ও মেগান রাজপরিবার থেকে বের হয়ে গেছেন বলে এক সূত্রের উদ্ধৃতি দিয়ে জানিয়েছিল টাইমস।

কিন্তু হ্যারি এবং উইলিয়ামের মুখপাত্ররা বিবৃতিতে বলেছেন, “পরিষ্কারভাবে নাকচ করার পরও আজ পত্রিকায় ডিউক অব সাসেক্স (হ্যারি) এবং ডিউক অব কেমব্রিজের (উইলিয়াম) সম্পর্ক নিয়ে জল্পনার ভিত্তিতে মিথ্যা স্টোরি ছাপা হয়েছে।”

“দুই ভাই যারা উভয়ই মানসিক স্বাস্থ্যের বিষয়টিকে অত্যন্ত গুরুত্ব দেন, তাদের জন্য এভাবে উস্কানিমূলক ভাষায় স্টোরি লেখা ক্ষতিকরক বৈকি।” বিবৃতিতে অবশ্য পত্রিকার নাম উল্লেখ করা হয়নি।

রাজ পরিবারের জ্যেষ্ঠ সদস্যের দায়িত্ব ছাড়ার ঘোষণা দেওয়ার পর হ্যারি এবং উইলিয়াম সোমবারই রানির সঙ্গে বৈঠকে বসছেন। এই দুই ভাইয়ের মধ্যে সম্পর্কে ফাটলের বিষয়টি নিয়ে গুঞ্জন শুরু হয়েছিল গতবছর অক্টোবরেই।যখন আইটিভি’র একটি ডকুমেন্টারি প্রচার করা হয়েছিল। সেখানে হ্যারি তার ভাইয়ের সঙ্গে দূরত্ব সৃষ্টির হওয়ার ইঙ্গিত দিয়ে বলেছিলেন,“আমরা দু’জন এখন দুই পথের মানুষ।”

সে সময়ই কিছু কিছু পত্রিকা উইলিয়ামের বিরূপ মনোভাবের বিষয়টি নিয়ে খবর প্রকাশ করে। নাম প্রকাশ না করে একটি সূত্রের উদ্ধৃতি দিয়ে খবরে বলা হয়েছিল, শুরু থেকেই মেগানকে ভাল চোখে দেখেননি উইলিয়াম। হ্যারিও বিষয়টি অনুভব করতে পেরেছিলেন।

মেগানের প্রতি উইলিয়ামের এই বিরূপ মনোভাব হ্যারি-মেগান দম্পতির রাজদায়িত্ব ছাড়ার পেছনে কাজ করেছে বলে জল্পনা রয়েছে।

‘দ্য সান’ পত্রিকার নির্বাহী সম্পাদকের কথায়, প্রিন্স উইলিয়াম এবং হ্যারি পর্দার আড়ালে একে অপরের সঙ্গে লড়াইয়ের এমন একটি সময় সামনে যৌথভাবে যে বিবৃতি দিয়েছেন সেটি অবাক করার মতোই ব্যাপার।

তিনি বিবিসি’কে বলেন, তিনি ‘বুলিং’ শব্দটি ব্যবহার করবেন না। তবে “প্রিন্স হ্যারি এবং উইলিয়ামের সম্পর্ক গত ১৮ মাস ধরে খুবই টানাপোড়েনের ভেতর দিয়ে গেছে।” বর্তমানে রাজপরিবার বিশৃঙ্খল পরিস্থিতিতে পড়ার পেছনে দুই ভাইয়ের এ সম্পর্ক ‘অনেক বড়’ প্রভাব ফেলেছে।