ফ্রান্সে ৬০০ ডাক্তারের পদত্যাগের হুমকি: সারা দেশে ধর্মঘটের প্রস্তুতি

220

নিউজ ডেস্ক: স্বাস্থ্যখাতে তহবিল বা অর্থ বরাদ্দ বৃদ্ধি না করলে কমপক্ষে ৬০০ ফরাসি ডাক্তার পদত্যাগের হুমকি দিয়েছেন। এরই মধ্যে তারা ধর্মঘট করছেন। এ সপ্তাহে পুরো দেশে তারা আন্দোলনে রাস্তায় নামার জন্যও প্রস্তুতি নিচ্ছেন। তারা হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছেন, বাজেট কর্তন, শয্যা সংখ্যা কমানো এবং স্টাফের সঙ্কটের কারণে ফ্রান্সের স্বাস্থ্য ব্যবস্থা ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে এসে পৌঁছেছে। এতে রোগিদের জীবন ঝুঁকিতে পড়ছে। অপ্রত্যাশিত এক খোলা চিঠিতে ফ্রান্সের কমপক্ষে ৬৬০ জন ডাক্তার স্বাক্ষর করেছেন। এতে বলা হয়েছে, ফ্রান্সের সরকারি হাসপাতাল মরে যাচ্ছে। তহবিল কর্তনের ফলে রোগিদের নিরাপত্তা হুমকিতে পড়েছে।

অথচ এক সময় ফ্রান্সের স্বাস্থ্যসেবাকে বিশ্বের সর্বশ্রেষ্ঠ স্বাস্থ্যসেবাগুলোর অন্যতম হিসেবে দেখা হতো। এ খবর দিয়েছে অনলাইন গার্ডিয়ান।

ফ্রান্সের হাসপাতালে ৯ মাস ধরে চিকিৎসকরা এই ধর্মঘট পালন করছেন। তারা সরকারকে এ জন্য জরুরিভিত্তিতে আলোচনার আহ্বান জানিয়েছেন। এই বিক্ষোভ শুরু হয়েছিল ইমার্জেন্সি বিভাগ থেকে। তা পরে শিশু থেকে মানসিক বিভাগ পর্যন্ত প্রসারিত হয়েছে। এ মাসে তার সঙ্গে যোগ দিয়েছেন জুনিয়র চিকিৎসকরা। এর কোনো শেষ দেখা যাচ্ছে না।

মঙ্গলবার ফ্রান্সজুড়ে বিক্ষোভ করবেন চিকিৎসকরা। এ সময় তাদের হাতে থাকবে ব্যানার। তাতে লেখা থাকবে- ‘পাবলিক হসপিটালস: এ লাইফ থ্রেটেনিং ইমার্জেন্সি’। তবে স্বাস্থ্যখাতের দীর্ঘ সময়ের এই ধর্মঘট মধ্যপন্থি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রনের জন্য মাথাব্যথার কারণ হয়ে উঠেছে। ২০০০ সালে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংগঠন ১৯১ টি দেশের মধ্যে স্বাস্থ্যখাতে ফ্রান্সকে শ্রেষ্ঠ হিসেবে ঘোষণা করে। কিন্তু এর ১৭ বছর পরে আরেকটি গবেষণা প্রকাশ করে ইন্সটিটিউট ফর হেলথ মেট্রিক্স অ্যান্ড ইভালুয়েশন। তাদের গবেষণা প্রকাশিত হয় ২০১৭ সালে ল্যানসেট মেডিকেল জার্নালে। তাতে ফ্রান্সের অবস্থান ১৫তম।