প্রেমিকের বাসরঘরে পুলিশ নিয়ে হাজির ধর্ষণের শিকার প্রেমিকা

241

ঢাকা সংবাদদাতা: সাভারে বিয়ের প্রলোভনে দেখিয়ে গার্মেন্টস কর্মীকে ধর্ষণের অভিযোগে মুনিরুল ইসলাম নামে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল শুক্রবার মধ্যরাতে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, অভিযোগকারী গার্মেন্টস কর্মী ওই মেয়েটির সঙ্গে ভাগলপুরের শাহ আলমের ছেলে মনিরুল ইসলাম আলিফের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। প্রায় আড়াই বছর আগে মেয়েটিকে বিয়ে করবে বলে পার্শ্ববর্তী এলাকায় একটি বাসা ভাড়া নিয়ে স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে বসবাস করতে থাকেন আলিফ।

পরে শুক্রবার রাতে আলিফ অন্যত্র বিয়ে করে স্ত্রীকে ঘরে তুলেন। এ খবর পেয়ে ওই প্রেমিকা আলিফের বাড়িতে ছুটে আসেন। সেখানে বিচার না পেয়ে রাতেই সাভার মডেল থানায় অভিযোগ দেন এবং আলিফের বাড়ির সামনে অনশন শুরু করেন।

এ সময় মধ্যরাতে সাভার মডেল থানা পুলিশ তাৎক্ষণিকভাবে আলিফের বাড়ি গিয়ে তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে আসেন। থানায় এসে মনিরুল ইসলাম আলিফ অভিযোগের সত্যতা স্বীকার করেন।

সাভার মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এএফএম সায়েদ জানান, প্রেমিকার অভিযোগের ভিত্তিতে আলিফকে গ্রেপ্তার করা হয়। গেল এক বছর ধরে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে প্রেমিকাকে ধর্ষণের অভিযোগে আলিফকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।