নারীর সঙ্গে আপত্তিকর ভিডিওর পর ওএসডি হচ্ছেন জামালপুরের ডিসি

456

ঢাকা সংবাদদাতা: জামালপুরের জেলা প্রশাসক (ডিসি) আহমেদ কবীরকে বিশেষ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওএসডি) করা হচ্ছে।

নারী অফিস সহকারীর সঙ্গে আপত্তিকর ভিডিও প্রকাশের ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে তার বিরুদ্ধে এ ব্যবস্থা নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়।

জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন শনিবার রাতে গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, প্রাথমিক তদন্তের পরিপ্রেক্ষিতে আহমেদ কবীরকে ওএসডি করার সিদ্ধান্ত হয়েছে। রোববার এ বিষয়ে আদেশ জারি হবে। এ বিষয়ে আরও তদন্ত করা হবে।

এদিকে নারী অফিস সহকারীর সঙ্গে জামালপুরের জেলা প্রশাসক (ডিসি) আহমেদ কবীরের যে আপত্তিকর ভিডিও প্রকাশ হয়েছে তা তদন্ত করছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। তদন্ত রিপোর্টের ভিত্তিতে তার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এ বিষয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম যুগান্তরকে বলেন, ‘বিষয়টি সম্পর্কে আমরা অবগত আছি।’ বিষয়টি নিয়ে কোনো তদন্ত কমিটি গঠন করবেন কিনা- এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, ‘আজ-কাল তো এসব প্রযুক্তির মাধ্যমে বানানো যায়, তাই আমরা বিষয়টি খতিয়ে দেখছি। ইতিমধ্যে বিষয়টি খোঁজ নিতে গোপনে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।’

সম্প্রতি জামালপুরের ডিসির একটি আপত্তিকর ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। ভিডিওটিতে ডিসি আহমেদ কবীরের সঙ্গে তার অফিসের এক নারীকর্মীকে অন্তরঙ্গ অবস্থায় দেখা যায়।

বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে খন্দকার সোহেল আহমেদ নামে একটি ফেসবুক আইডি থেকে জেলা প্রশাসকের আপত্তিকর ভিডিওটি পোস্ট করা হয়। যদিও বিষয়টি অস্বীকার করে ঘটনাটি ‘সাজানো’ বলে দাবি করেন ডিসি আহমেদ কবীর। ওই ঘটনায় জামালপুরসহ সারা দেশের মানুষের মাঝে ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে।