মার্কিন কংগ্রেসের দুই মুসলিম সদস্যের সফরে ইসরাইলের নিষেধাজ্ঞা

106

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: মার্কিন কংগ্রেসের দুই মুসলিম নারী সদস্যের ইসরাইল সফরে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে ইসরাইলি সরকার। ডেমোক্র্যাট দলের ওই দুই আইনপ্রণেতা হচ্ছেন ইলহান ওমর ও রাশিদা তালিব। তারা উভয়েই ইসরাইল সরকারের কঠোর সমালোচক। আগামী সপ্তাহে তাদের ইসরাইল দখলীকৃত পশ্চিম তীর ও পূর্ব জেরুজালেমে সফর করার কথা ছিল। এ খবর দিয়েছে বিবিসি।
খবরে বলা হয়, ওমর ও তালিব উভয়েই ইসরাইল বিরোধী ‘বয়কট, ডাইভেস্টমেন্ট অ্যান্ড স্যাংশন’ (বিডিএস) আন্দোলনের সমর্থনকারী। তবে এ আন্দোলনের সমর্থনকারীদের ইসরাইলে প্রবেশ নিষিদ্ধ করার আইন রয়েছে দেশটির সংবিধানে। তবে গত মাসে যুক্তরাষ্ট্রে নিযুক্ত ইসরায়েলি রাষ্ট্রদূত রন ডেরমার দুই কংগ্রেস সদস্যের ইসরায়েল সফরের ব্যাপারে ইতিবাচক অবস্থানের কথা জানিয়েছিলেন। বলেছিলেন, যুক্তরাষ্ট্র ও ইসরাইলের মধ্যকার বন্ধুত্বপূর্ণ স¤পর্কের খাতিরে তাদের সেখানে যেতে দেয়া হবে।


ট্রাম্পের আহ্বানেই নিষেধাজ্ঞা!

সমালোচকরা বলছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের আহ্বানেই ওমর ও তালিবের ইসরাইলে প্রবেশ নিষিদ্ধ করা হয়েছে। বৃহ¯পতিবার এক টুইটে ট্রা¤প লিখেন, ওই দুই কংগ্রেস সদস্যকে ইসরায়েল সফরের অনুমতি দেওয়া হলে তা হবে ইসরায়েলের দুর্বলতা। তারা ইসরায়েল ও সব ইহুদিকে ঘৃণা করেন। কোনোভাবেই তাঁদের মানসিকতার পরিবর্তন ঘটানো যাবে না।
ট্রাম্পের ওই টুইটের পরই ইসরাইলের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে ওমর ও তালিবের সফরে নিষেধাজ্ঞার কথা জানানো হয়। উল্লেখ্য, গত বছরের মধ্যবর্তী নির্বাচনে কংগ্রেস সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হন ওই দুই ডেমোক্র্যাট। তাদের মধ্যে সোমালি বংশোদ্ভূত ওমর ও ফিলিস্তিনি বংশোদ্ভূত তালিব যথাক্রমে মিনেসোটা ও মিশিগান অঙ্গরাজ্য থেকে নির্বাচিত হন। তারা ট্রাম্পের অভিবাসন ও মুসলিমবিরোধী নীতির কট্টর সমালোচক। সম্প্রতি এই দুই জন সহ আরো দুই মার্কিন নারী কংগ্রেস সদস্যের সঙ্গে বিবাদে জড়িয়ে পড়েন ট্রা¤প। তার অভিবাসন নীতির সমালোচনা করায়, ওই কংগ্রেস সদস্যদের নিজ দেশে ফিরে যেতে বলেন তিনি।
ওমর ইসরাইলের সফর নিষিদ্ধের সিদ্ধান্তের নিন্দা জানিয়ে বলেন, এটি গণতান্ত্রিক মূল্যবোধের প্রতি অপমান ও মিত্র দেশ থেকে সরকারি কর্মকর্তাদের সফরের বিরুদ্ধে শীতল প্রতিক্রিয়া।