হবিগঞ্জে স্বামীর হাতে স্ত্রী খুন!

106

সিলেট সংবাদদাতা: হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জে স্বামীর হাতে স্ত্রী খুন হওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনার পর থেকে নিহতের স্বামী পলাতক রয়েছেন। সোমবার রাত ১১টার দিকে সিলেট ওসমানি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধিন অবস্থায় তিনি মারা যান।

নিহত মুক্তি রাণী দাস উপজেলার পূর্ব বড়চর গ্রামের কিশোর দাসের স্ত্রী। তারা দু’জনেই ওলিপুর এলাকায় একটি কোম্পানীতে চাকরি করত। সে সুবাধে তারা সেখানেই বাসা ভাড়া নিয়ে বসবাস করে আসছে।

জানা যায়, সোমবার দুপুরে মুক্তি রাণী দাস বাসায় কাজ করছিলেন। এ সময় স্বামী বাসায় আসলে তুচ্ছ বিষয় নিয়ে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে স্বামী কিশোর দাস মুক্তা রাণীকে ঘরে থাকা দা দিয়ে কুপিয়ে জখম করে। তার চিৎকারে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এসে তাকে উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে প্রেরণ করেন। কিন্তু তার অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে সিলেট এমএমজি ওসমানি মেডিকেল কলেজে প্রেরণ করেন। সেখানে চিকিৎসাধিন অবস্থায় রাত ১১টার দিকে মুক্তা মারা যান।

এ ব্যাপারে শায়েস্তাগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনিসুজ্জামান নিহতের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, সোমবার রাত ১১টার দিকে সিলেটে চিকিৎসাধিন অবস্থায় তিনি মারা যাওয়ার সংবাদ শুনেছি।