শামসুর রহমান ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে সিলেটে তিন শতাধিক পরিবারের মধ্যে  রমজানের খাদ্য সামগ্রী বিতরন

118

ওয়ানবাংলানিউজ: পবিত্র মাহে রমজান উপলক্ষে সিলেটের সীমান্তবর্তী প্রত্যন্ত জনপদ গোয়াইনঘাটের সাড়ে তিনশত পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছে শামসুর রহমান ফাউন্ডেশন। প্রতি বছরের ন্যায় এবারও উপজেলার ২ নং পশ্চিম জাফলং ইউনিয়নের দেওয়ারগ্রামে মরহুম শামসুর রহমান-এর বাসভবনের সামনে এসব গরীব ও অসহায়দের হাতে খাদ্য সামগ্রী তুলে দেওয়া হয়।

গত ৬ মে সোমবার দুপুরে শামসুর রহমান ফাউন্ডেশনের সদস্য সচিব জিবলু রহমানের সভাপতিত্বে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন গ্রেটার সিলেট ডেভেলাপমেন্ট এন্ড ওয়েলফেয়ার কাউন্সিল ইন ইউকের কেন্দ্রীয় যুগ্ম-সম্পাদক ও সাউথ-ইস্ট রিজিওনের সাধারণ সম্পাদক ফজলুল করিম চৌধুরী, গ্রেটার সিলেট ডেভেলাপমেন্ট এন্ড ওয়েলফেয়ার কাউন্সিল ইন ইউকের সাউথ-ইস্ট রিজিওনের জয়েন্ট ট্রেজারার আবুল মিয়া, সিলেট প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মো. সিরাজুল ইসলাম, সাংবাদিক ইলিয়াস আকরাম, সমাজসেবী আবদুর রব, মো. মুতলিব প্রমুখ।
অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, বৃহত্তর সিলেট অঞ্চলের আর্থ-সামাজিত উন্নয়ন, শিক্ষার প্রসার, দারিদ্র দূরীকরণ, নারীদের সাবলম্বী করা এবং গরীব-অসহায় মানুষদের সাহায্যে শামসুর রহমান ফাউন্ডেশন কাজ করছে। আলোকিত সিলেট গড়ার লক্ষে তারা তাদের কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন। তাদের পাশাপাশি অন্য বিত্তবান ও প্রবাসীরা গরীব-অসহায়দের সাহায্যে আরো বেশি করে এগিয়ে আসা দরকার।বক্তারা শামসুর রহমান ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান সুফী সুহেল আহমদকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়ে এ মহতি উদ্যোগ প্রতি বছর অব্যাহত রাখার আহবান জানান।
শামসুর রহমান ফাউন্ডেশনের খাদ্য সাহায্য পাওয়া আসমা বেগম বলেন, ‘প্রতিবছর রমজানের আগে শামসুর রহমান ফাউন্ডেশন আমাদের বিভিন্ন খাদ্য সামগ্রী দিয়ে থাকেন। রমজানে পরিবারের খরচ বেড়ে যায়। তাই এ সাহায্য আমাদের অনেক উপকারে আসে।
বৃদ্ধ চান মিয়া শামসুর রহমান ফাউন্ডেশনে এরকম মহৎ কাজ চালিয়ে যাওয়ার আহবান জানিয়ে বলেন, রমজানের মতো গুরুত্বপূর্ণ সময়ে আমাদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছে শামসুর রহমান ফাউন্ডেশন। প্রতিবছরের মতো আগামীতেও তারা এভাবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়াবে বলে আশা করছি।
শামসুর রহমান ফাউন্ডেশনের সদস্য সচিব জিবলু রহমান সভাপতির বক্তব্যে বলেন, ‘শামসুর রহমান ফাউন্ডেশন শিক্ষার উন্নয়নের লক্ষ্যে প্রতিষ্ঠা করা হলেও এটি এখন বিভিন্ন সমাজসবামূলক কাজে অংশগ্রহণ করছে। প্রত্যেক বছর রমজানের পূর্বে ইফতার সামগ্রী বিতরণ, ঈদের আগে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ, নলকূপ স্থাপন, বিভিন্ন মসজিদ-মাদ্রাসায় ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে সহযোগিতা অব্যাহত রয়েছে বলে জানান তিনি।