চুক্তি ছাড়াই শেষ হলো লেবার- কনজারভেটিভ আলোচনা

1363

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: যুক্তরাজ্যের বিরোধীদলীয় নেতা জেরেমি করবিন জানিয়েছেন, তারা ব্রেক্সিটের বিষয়ে সরকারের সঙ্গে কোন ধরণের সমঝোতায় আসতে পারেননি। ফলে কোন ধরণের চুক্তি ছাড়াই শেষ হয়েছে লেবার-কনজারভেটিভ আলোচনা। ফলশ্রæতিতে ব্রেক্সিট নিয়ে সৃষ্ঠ রাজনৈতিক অচলাবস্থা আরো ঘনীভূত হলো। বিবিসি, গার্ডিয়ান।

রোববার দলের নেতা জানিয়েছেন, ৬ সপ্তাহব্যঅপি দুই প্রধান রাজনৈতিক দলের এই আলোচনার কোন ফল আসেনি। এর কারণ হিসেবে তিনি ক্রমবর্ধমান দূর্বলতা আর অস্থিতিশীলতার কথা উল্লেখ করেছেন। তবে ধারণা করা হচ্ছে ব্রেক্সিট অচলাবস্থা কাটাতে আর কোন বিকল্প আছে কিনা, সে বিষয়ে দুই দল আলোচনা করতে পারে। গত বৃহস্পতিবার ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী আগামী মাসের ব্রেক্সিট ভোটকে সামনে রেখে ডাউনিং স্ট্রিট ছাড়ার সময়সীমা ঘোষণার প্রতিশ্রুতি দেন। জুন মাসের শুরুতেই পার্লামেন্টে ভোটাভুটির মাধ্যমে নিজের চুক্তি পাশের আরো একবার চেষ্টা করবেন থেরেসা।৩ জুন প্রথমবারের মতো এমপিরা ইইউ বিচ্ছেদ চুক্তির বিলে ভোট দেবেন। তবে বিবিসির রাজনৈতিক সম্পাদক লওরা কুঞ্জেনবার্গ জানিয়েছেন, বিলটি অবশ্যই হেরে যাবে। কারণ সবাই আশা করছিলো, থেরেসা সরে যাওয়ার ঘোষণা দিয়ে দেবেন। কিন্তু তিনি তা দেননি।

গত ২৯ মার্চ ববিুরোপিয় ইউনিয়ন ত্যাগ করার কথা ছিলো যুক্তরাজ্যের। কিন্তু থেরেসার পরিকল্পনা এমপিরা ৩ বার প্রত্যাখান করায়, দুইবার পেছায় ব্রেক্সিট। পরবর্তীতে ইউরোপিয় ইউনিয়ন নতুন করে ৩১ অক্টোবর ব্রেক্সিট সময়সীমা বেঁধে দেয়।