বিয়ানীবাজার জনকল্যাণ সমিতির ৩০ বছর পূর্তি উৎসব উদযাপন: ৩০ গুনী ব্যক্তিকে সম্মাননা প্রদান

110

এম এ জামান: বর্ণাঢ্য আয়োজন আর সৃজনশৈলীর অনুষ্ঠানমালায় বিয়ানীবাজার জনকল্যাণ সমিতি ইউকে উদযাপন করেছে ৩০ বছর পূর্তি উৎসব। অনুষ্ঠানে যুক্তরাজ্যবাসী বিয়ানীবাজার উপজেলার ২৭জন গুনী ব্যক্তিত্বকে সম্মাননা প্রদান করা হয়েছে।
লাইফটাইম এচিভমেন্ট এওয়ার্ড প্রদান করা হয় বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ ও কমিউনিটি সংগঠক ও সমাজসেবক আলহাজ্জ্ব শামস উদ্দিন খান কে। বিয়ানীবাজার ক্যান্সার ও জেনারেল হাসপাতাল সহ যুক্তরাজ্যে ও নিজভূমে অনেক শিক্ষা ও সামাজিক সেবামূলক প্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠায় তিনি অগ্রনী ব্যক্তিত্ব।

এছাড়াও যুক্তরাজ্যবাসী ৩জন গুনী ব্যক্তিত্ব তাঁদের কর্মসৃজনে কমিউনিটিতে বিশেষ অবদান রাখছেন, তাঁদেরকেও সম্মাননা প্রদান করা হয়। তাঁরা হলেন বিশিষ্ট সাংবাদিক, সাহিত্যিক আব্দুল গাফফার চৌধুরী, চ্যানেল এস এর চেয়ারম্যান ও বিশিষ্ট সংগঠক আহমেদ-উস-সামাদ চৌধুরী জেপি, মুক্তিযোদ্ধা সাংবাদিক ও লেখক ইসহাক কাজল।
১০ মার্চ লন্ডনের রয়েল রিজেন্সিতে জাকঝমকপূর্ণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন যুক্তরাজ্যস্থ বিয়ানীবাজারবাসী সহ কমিউনিটির বিশিষ্ট জনেরা। সন্ধ্যে ৬টায় শুরু হওয়া অনুষ্ঠানটি চলে রাত ১১টা পর্যন্ত।
অনুষ্ঠানে ছিল নিজ অঞ্চলের ইতিহাস ঐতিহ্য নির্ভর গাণ ,ছড়া, কবিতা, স্থিরচিত্র এবং সম্মাননা প্রাপ্তদের জীবনের অনুঅংশের তথ্যচিত্র উপস্থাপন।

বিশেষ অতিথি ছিলেন- টাওয়ারও হ্যামলেটস এর মেয়র জন বিগস, ইলফোর্ড নর্থ এর এমপি স্টিভেন টিমস,যুক্তরাজ্য বাংলাদেশ এর ডেপুটি হাই কমিশনার জুলকার নাইন, চ্যানেল এস এর প্রতিষ্ঠাতা মাহি ফেরদৌস জলিল, সাবেক বিরোধীদলীয় হুইপ সেলিম উদ্দিন, কমনওয়েলথ জার্নালিষ্ট এসোসিয়েশনের ভাইস প্রেসিডেন্ট সৈয়দ নাহাস পাশা, লন্ডন বাংলা প্রেসক্লাব এর সভাপতি মোহাম্মদ এমদাদুল হক চৌধুরী, ক্রয়োডন কাউন্সিলেন ডেপুটি মেয়র হুমায়ুন কবির, কেমডেন কাউন্সিলের সাবেক মেয়র আব্দুল কাদির, লন্ডন বাংলা প্রেসক্লাব এর সাবেক সভাপতি সাপ্তাহিক পত্রিকা সম্পাদক মোহাম্মদ বেলাল আহমদ, টাওয়ার হ্যামলেটস এর ডেপুটি স্পিকার ভিক্টোরিয়া ওবাজি,ডা, আনোয়ারা আলী এমবিই. ব্রেন্ট কাউন্সিলের সাবেক মেয়র কাউন্সিলর পারভেজ আহমদ, যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগ এর সভাপতি সুলতান শরীফ, সাধারণ সম্পাদক সাজিদুর রহমান, যুক্তরাজ্য বিএনপির সাবেক সভাপতি শায়েস্তা চৌধুরী কুদ্দুস, হিথরো আওয়ামী লীগ এর সভাপতি মো. শামীম আহমদ,বিসিএ এর সেক্রেটারী জেনারেল ওলি খাঁন, কোষাধ্যক্ষ সাইদুর রহমান বিপুল এবং সাবেক সাধারণ সম্পাদক এম এ মুনিম প্রমূখ।

মৌলানা আমিনুল ইসলামের কোরআন তেলাওয়াত এর মাধ্যমে অনুষ্ঠান শুরু হয়। নতুন প্রজন্মের শিশুদের অংশগ্রহনে সববেত কণ্ঠে জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশন করেন সংগঠনের কার্যকরী পরিষদের উপদেষ্টা ও সদস্যবৃন্দ।
৩০ বছর পূর্তি উৎসব উপলক্ষে প্রকাশিত স্মারকগ্রন্থ পঞ্চখণ্ড-৩ এর মোড়ক উন্মোচন করেন স্মারকগ্রন্থের সম্পাদক সাইদুর রহমানকে নিয়ে সংগঠনের উপদেষ্টাবৃন্দ। স্বারকগ্রন্থে সংগঠনের বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক ও জনকল্যাণ মূলক কর্মযজ্ঞের বিভিন্ন স্থিরচিত্রসহ অঞ্চলভিত্তিক বিভিন্ন বিষয়ের সৃজনশীল লেখা প্রকাশ পেয়েছে।
শুরুতে সংগঠনের পক্ষ থেকে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সভাপতি আব্দুল করিম নাজিম ও সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেইন।

৩০ বছর পূর্তির উৎসবে যুক্তরাজ্যবাসী বিয়ানীবাজারের কৃর্তিপুরুষদের সম্মাননার প্রসঙ্গ টেনে অতিথিরা বলেছেন- সামাজিক, সাংস্কৃতিক , রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক ইতিহাস ঐতিহ্যে সমৃদ্ধ জনপদ বিয়ানীবাজার দূর প্রবাসেও সমানভাবে আলোকিত। বাঙালি কমিউনিটি ছাড়াও মূলধারায় কাজ করে বাংলাদেশকে উজ্জ্বল ভাবে উপস্থাপনে বিয়ানীবাজারবাসী অগ্রনী ভূমিকা পালন করছে। আজকের সৃজনশৈলীর উপস্থাপনার উৎসবটি মূলত যুক্তরাজ্যে পজিটিভ বাংলাদেশ এর চিত্র প্রকাশ পেয়েছে। বিয়ানীবাজার জনকল্যাণ সমিতি ইউকের ৩০ বছরপূর্তি অনুষ্ঠানটি গুনীজনদের সম্মাননা কাজটি অনুকরণীয় হয়ে থাকবে।

চার পর্বের অনুষ্ঠানের প্রধান অংশের প্রাণজ সঞ্চালনায় ছিলেন জনপ্রিয় উপস্থাপক ও আবৃত্তিশিল্পী মুনিরা পারভিন ও সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেইন । উপস্থাপনা সহযোগী ছিলেন সহ সাধারণ সম্পাদক সাহাব উদ্দিন ও ফুয়াদ আহমদ , নুরুদ্দীন লোদী। অনুষ্ঠানে সমাপনী বক্তব্য রাখেন ট্রেজারার ফখরুল ইসলাম।

৩০ বছর পূর্তির অনুষ্ঠান আয়োজনে ছিল প্রিয় জন্মস্থানের মানুষ এবং অঞ্চলের ঐতিহ্য বহন করে চলা নানা বিষয়ের সম্মিলন। অনুষ্ঠানে কবিতা, ছড়া ও মৌলিক গাণ পরিবেশন করেন বিশিষ্ট আবৃত্তিশিল্পী নাজমুল হোসেন এবং শতরুপা চৌধুরী।

বিয়ানীবাজারসহ বাংলাদেশের দূরারোগ্যব্যাধি ক্যান্সারসহ তৃনমূল মানুষকে স্বাস্থ্যসেবা প্রদান করার লক্ষে প্রতিষ্ঠিত বিয়ানীবাজার ক্যান্সার ও জেনারেল হাসপাতালকে বেস্ট অর্গানাইজেশন এওয়ার্ড সম্মাননা পদক প্রদান করা হয়।

এনলাইটেন্ড এওয়ার্ড প্রদান করা হয়েছে ৪ বিশিষ্ট ব্যক্তিকে। তাঁরা হলেন- ২০১৪ সালের ২৩ মে প্রথমবারের মতো গুগল গ্লাস ব্যবহার করে উইচ্যাটের মাধ্যমে অস্ত্রোপচার সরাসরি সম্প্রচার করে বিশ্বব্যাপী চিকিৎসা সেবাকে নতুনদ্বার উন্মোচন করে দেয়া বিখ্যাত ক্যান্সার বিশেষজ্ঞ সার্জন প্রফেসর শাফি আহমদ । বিয়ানীবাজারে গরীবরে ডা. হিসাবে পরিচিত ডা. মতিন উদ্দিন আহমদ, বিশিষ্ট মানবাধিকার ব্যক্তিত্ব ও মাইগ্রেন্ট ভয়েস এর চেয়ারম্যান হাবিব রহমান এবং এশিয়া এবং এথনিক কমিউনিটির প্রথম জাজ স্বপ্নারা খাতুনকে।

অর্গানাইজার অফ লিবারেশন ওয়ার এওয়ার্ড প্রদান করা হয়েছে মুক্তিযুদ্ধে যুক্তরাজ্য প্রবাসী বিশিষ্ট সংগঠক মরহুম মিম্বর আলী ও শামসুর রহমান। মরহুম মিম্বর আলী ও শামসুর রহমানকে ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধে গৌরবউজ্জ্বল অবদান রাখায় বাংলাদেশ সরকারের নির্দেশে যুক্তরাজ্যস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের মাধ্যমে ২০০৪ সালে বাংলাদেশের ৩৩তম স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবসে মরনোত্তর সম্মাননা এওয়ার্ড ক্রেস্ট এবং সম্মাননাপত্র প্রদান করা হয়।

ফ্রিডমফাইটাস এওয়ার্ড প্রদান করা হয়েছে- মুক্তিযোদ্ধা মতিউর রহমান ও মুক্তিযোদ্ধা ফয়জুর রহমান খান কে।

পয়েটিক এওয়ার্ড প্রদান করা হয়েছে বিলেতবাসী কবি ফারুক আহমেদ রনি।ফারুক আহমেদ একজন কবি, গীতিকার ও নাট্যকার। যুক্তরাজ্যে প্রাচীনতম সাহিত্য সংগঠন সংহতি সাহিত্য পরিষদেরও তিনি প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি।

আ্যাথর এওয়ার্ড প্রদান করা হয়েছে বিশিষ্ট লেখক কলামিষ্ট ফারুক যোশী। যুক্তরাজ্য ভিত্তিক অনলাইন টিভি ৫২বাংলা‘র প্রধান নির্বাহী এবং ৫২বাংলা টিভি ডটকম পোর্টালের প্রধান সম্পাদক ফারুক যোশী। এছাড়াও নর্থ ওয়েষ্ট ইংল্যান্ড থেকে প্রকাশিত প্রবাস বাংলা পত্রিকার প্রধান সম্পাদক তিনি। সাহিত্য-সংস্কৃতির অনলাইন পোর্টাল পলল’র প্রধান সম্পাদক ফারুক যোশী। বাংলাদেশে প্রধান জাতীয় দৈনিকগুলোতে তিনি নিয়মিত কলাম লিখছেন।

বেষ্ট মিডিয়া এওয়ার্ড সম্মাননা পদক প্রদান করা হয়েছে অনলাইন টিভি ৫২বাংলা কে। ৫২ এর প্রেরণা এবং ৭১ এর চেতনাকে ধারণ করে ৫২বাংলা টিভি (52banglatv.com) কাজ করছে গ্লোবালি। বাংলা সংযোগ দেশে দেশে- শ্লোগানকে ধারণ করে 52banglatv.com ইউরোপ, আমেরিকা, এশিয়া ও অনেশিয়ায় দেড় কোটি প্রবাসীর কণ্ঠস্বর হবার প্রত্যয়ে কাজ করছে। ৫২বাংলা নিজস্ব ওয়েভসহ স্যোসাল মিডিয়ার সবগুলো মাধ্যমে দেখা ও পড়া যায় পৃথিবীর যে কোন প্রান্ত থেকে।

বেষ্ট মাদার এওয়ার্ড প্রদান করা হয়েছে মহিয়সী মা ছফরুন নেছা খানমকে। বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ, সমাজসেবক আলহাজ্জ্ব শাসম উদ্দিন খানের সহধর্মীনি ছফরুন নেছা সন্তানদের উচ্চ শিক্ষায় সুপ্রতিষ্ঠিত করা, স্বামী-সন্তান এবং কমিউনিটির ভালো কাজে অনুপ্রেরণাদায়ী হিসাবে সকলের কাছে শ্রদ্ধার্ঘ ও সুপরিচিত।

ইনসপ্যায়ারিং য়্যুউথ এওয়ার্ড প্রদান করা হয়েছে ৪জন অনুপ্রেরণাদায়ী তারুণ্যদ্বীপ্তকে।সঙ্গীত বিভাগে পেয়েছেন বিনায়ক দেব জয়। তিনি বাংলাদেশ বেতার ও টেলিভিশনের একজন প্রতিশ্রুতিশীল কণ্ঠ শিল্পী। যুক্তরাজ্যে একজন জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী হিসাবে পরিচিত রয়েছে।

খেলাধুলায় সম্মাননা পেয়েছেন রাহাদ চৌধুরী। ব্রিটেনে রাগবী খেলায় প্রথম ব্রিটিশ বাংলাদেশী হিসাবে রাগবী কাউন্টি অনুর্ধ’২০ এ ব্রিটিশ-বাংলাদেশীদের মুখ উজ্জ্বল করেছেন বিয়ানীবাজারের সন্তান রাহাদ চৌধুরী।
চ্যারেটি ও মানবকল্যাণে সম্মাননা পদক পেয়েছেন দুইজন। এমদাদুর রহমান এমবিই ২০১২ সালে লন্ডনে পেরাঅলিম্পিক মশাল বহন এবং গ্লাস্কোতে কমনওয়েলথ গেমস ২০১৪ সালের কুইন্স বাটন র্যা লীতে মশাল বহন করেন। সমাজসেবায় অনন্য কাজের জন্য তিনি মহামান্য রাণী কর্তক এমবিএ খেতাব পেয়েছে।

পলি ইসলাম ব্রিটিশ- বাংলাদেশ চেম্বারের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক ও মহাসচিব এবং দীর্ঘ দিন থেকে যুক্তরাজ্য এবং বাংলাদেশে একটি অভিবাসন সংস্থায় ইমিগ্রেশন এডভাইজার হিসাবে কাজ করছেন। নারীদের ক্ষমতায়ন ও জনকল্যাণমূলক কাজের মাধ্যমে সমাজের ইতিবাচক পরিবর্তনে অবদান রাখায় তাঁকে ২০১৯ সালে এমবিই খেতাব দেয়া হয়।
বাংলাদেশে শিক্ষা ও সমাজসেবায় দীর্ঘদিন থেকে ধারাবাহিক কাজ করা আজাদ চৌধুরীকে স্যোসাল এন্ড ওয়েলফেয়ার এওয়ার্ড প্রদান করা হয়েছে। যুক্তরাজ্যে সামাজিক ও সমাজসেবামূলক কাজের স্বীকৃতি স্বরুপ তিনি এমবিই খেতাব লাভ করেছেন।

মরনোত্তর পদক প্রদান করা হয়েছে সংগঠনের প্রতিষ্ঠাকালীন সময় থেকে যারা সংগঠনের প্রতিনিধিত্বশীল কাজে ও পদে থেকে সমাজে আলোকিত কাজ করেছেন। তাঁরা হলেন বিয়ানীবাজার জনকল্যাণ সমিতি ইউকে অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা এবং সমিতির সাবেক সভাপতি মরহুম আব্দুল মতলিব।
বিলেতে বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক আন্দোলনে তার ভুমিকা রাখা এবং বিয়ানীবাজার জনকল্যাণ জনকল্যাণ সমিতি ইউকের প্রতিষ্ঠাতাদের অন্যতম মরহুম মৌওলানা ইজ্জাদ আলী।

বাংলাদেশ ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশন, বিয়ানীবাজার জনকল্যাণ সমিতি ইউকে ও বিয়ানীবাজার ওয়েলফেয়ার ট্রাস্ট এর অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন মরহুম হাফিজ উদ্দিন হাফিজ উদ্দিন।

বিয়ানীবাজার জনকল্যাণ সমিতি ইউকে ও প্রগতি এডুকেশন ট্রাস্ট ইউকে অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা এবং আমৃত্যু যুক্তরাজ্য বিএনপির সভাপতির দায়িত্ব পালনকারী মো. কমর উদ্দিন। এবং

টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের লেবার দলীয় প্রথম বাংলাদেশী কাউন্সিলার ও বিশিষ্ট সাংবাদিক বর্ণবাদ বিরোধী আন্দোলন সহ নিবেদিত প্রাণ সংগঠক সাহাব উদ্দিন আহমদ বেলাল।

আশির দশকে লন্ডনের বর্ণবাদী চরম বিদ্বেষপূর্ণ সময়ে গঠিত বাংলাদেশ ইয়্যূথ এসোসিয়েশন এর প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এবং যুক্তরাজ্য জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এবং আমৃত্যু এই পদে আসীন থাকা মরহুম আলহাজ্ব শামছ উদ্দিন।

রাতের প্রীতিভোজের পর শেষ পর্বে অনুষ্ঠিত হয় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। বিলেতের বিশিষ্ট সংগীত শিল্পী গৌরী দাস, শতাব্দি কর ও মমতাজ সঙ্গীত পরিবেশন করেন।

প্রসঙ্গত ব্রিটেনে উপজেলা ভিত্তিক প্রাচীনতম সামাজিক সংগঠন বিয়ানীবাজার জনকল্যাণ সমিতি ইউকে দীর্ঘ তিন যুগেরও বেশী সময় ধরে যুক্তরাজ্য এবং বাংলাদেশে শিক্ষা , মানব সেবা সামাজিক সাংস্কৃতিক কর্মকান্ড করে অনুকরণীয় সংগঠন হিসাবে ধারাবাহিক ভাবে কাজ করছে। বিয়ানীবাজার ক্যান্সার ও জেনারেল হাসপাতাল এবং বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও সমাজজসেবামূলক কাজে অনুকরণীয় কাজের জন্য যুক্তরাজ্যে একটি অন্যতম সেবা সামাজিক সংগঠন হিসাবে পরিচিত