সিলেটে শামসুর রহমান ফাউন্ডেশনের সেলাই মেশিন ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণ

43

ওয়ানবাংলানিউজ: সিলেটের গোয়াইনঘাটে শামসুর রহমান ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে প্রশিক্ষিত নারীদের মাঝে সেলাই মেশিন ও গরীব-দুঃস্থদের মধ্যে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।  গোয়াইনঘাটের রুস্তুমপুর ইউনিয়নের বঙ্গবীর এলাকায় মঙ্গলবার দুপুরে এসব সেলাই মেশিন ও খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করা হয়।
শামসুর রহমান ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান যুক্তরাজ্য প্রবাসী কমিউনিটি নেতা সুফি সুহেল আহমদের সভাপতিত্বে ও কলামিস্ট এম এ জব্বারের পরিচালনায় এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন গ্রেটার সিলেট ডেভেলপম্যান্ট এন্ড ওয়েলফেয়ার কাউন্সিল ইন ইউকে’র সাউথইস্ট রিজিওনের সভাপতি ইসবাহ উদ্দিন। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জিএসসি সাউথইস্ট রিজিওনের সহ-সভাপতি মামুনুর রশিদ, সিলেট প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম, রুস্তুমপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শাহাব উদ্দিন, চ্যানেল এস এর সিলেট ব্যুরো প্রধান অ্যাডভোকেট মঈন উদ্দিন মঞ্জু, খাসিয়াপুঞ্জির হেডম্যান ওয়েলকাম লম্বা,  সাংবাদিক ইলিয়াস আকরাম।
শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন ফাউন্ডেশনের সদস্য সচিব জিবলু রহমান।  আরও উপস্থিত ছিলেন- এলবিছ লামিন, আসাদুজ্জামান, পলাশ ভদ্র, ইসমাইল আলী, আলী আহমদ প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, সিলেটের বিভিন্ন এলাকায় বিশেষ করে গোয়াইনঘাট উপজেলায় দারিদ্র্য দূরীকরণ ও শিক্ষার প্রসারে কাজ করছে শামসুর রহমান ফাউন্ডেশন। নারীদের স্বাবলম্বী করে দেশের উন্নয়নে অবদান রাখছেন তারা। প্রতিবছর প্রশিক্ষিত নারীদের সেলাই মেশিন প্রদান করে তাদের হাতকে কর্মীর হাতে রুপান্তরিত করছেন ফাউন্ডেশনের কর্মকর্তারা। এর মাধ্যমে নারীরা ছেলে-মেয়েদের লেখাপড়া ও সংসারের খরচ নির্বাহ করতে পারছেন।
সভাপতির বক্তব্যে ফাউন্ডেশনের সভাপতি সুফি সুহেল আহমদ বলেন, দারিদ্র্য দূরীকরণ ও গরীব মানুষের মুখে হাসি ফুটাতে আমাদের এ প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে। তিনি এ ব্যাপারে সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।
সেলাই মেশিন পাওয়ায় উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে নতুন সংগ্রাম পুঞ্জির সাইলি খংসতিয়া বলেন, সেলাই মেশিন পাওয়ায় স্বামীর পাশাপাশি আমিও আয়-রোজগার করে সংসারে অবদান রাখতে পারবো। বাড়তি আয় দিয়ে ছেলেমেয়েদের লেখাপড়া ভালোভাবে চালিয়ে যাব। জাফলং চা বাগানের সংগীতা প্রধান বলেন, সেলাই মেশিন পাওয়ায় অবসর সময় কাজো লাগাবো।  বাড়তি আয় দিয়ে বাবাকে সাহায্য করতে পারবো। সেলাই মেশিন প্রাপ্ত লাবু গ্রামের আফতারুল, গোয়াইন গ্রামের সুুফিয়া বেগম ও বলেশ্বর গ্রামের রুহেনা বেগমও সেলাই মেশিন চালিয়ে সংসারে স্বচ্ছলতা নিয়ে আসার স্বপ্নের কথা জানান।  তারা এজন্য শামসুর রহমান ফাউন্ডেশনকে ধন্যবাদ জানান। শামসুর রহমান ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে এবার সবমিলিয়ে ৯টি সেলাই মেশিন বিতরণ করা হবে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন।