টাইগারদের ৩৩২ রানের টার্গেট ওয়েস্ট ইন্ডিজের

23

খেলাধুলা ডেস্ক: দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ধবলধোলাই করেছে বাংলাদেশ। এবার তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের পালা। তবে ওয়ানডে সিরিজ যে সহজ হবে না-তার প্রমাণ মিলল প্রস্তুতিতে। এ ম্যাচে রানের পাহাড় গড়েছে ক্যারিবীয়রা। বিসিবি একাদশকে ৩৩২ রানের টার্গেট দিয়েছে তারা ।

বিকেএসপিতে টস জিতে আগে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। অধিনায়কত্ব করলেও টস করেননি মাশরাফি বিন মুর্তজা। তার পরিবর্তে টস করেন রুবেল হোসেন। যেখানে হেরে যান তিনি। টস জিতে প্রথমে ব্যাটিং নেন সফরকারী দলের অধিনায়ক রোভম্যান পাওয়েল।

উড়ন্ত সূচনা এনে দেন কাইরন পাওয়েল ও শাই হোপ। ওপেনিং জুটিতে ১০১ রান এনে দিয়ে ব্যক্তিগত ৪৩ রানে ফেরেন পাওয়েল। পরে ড্যারেন ব্রাভোকে নিয়ে এগিয়ে যান হোপ। এতে দুরন্ত গতিতে ছুটে ক্যারিবীয়রা। তবে হঠাৎ পথ হারায় তারা। চটজলদি ফিরে যান ব্রাভো, হোপ ও মারলন স্যামুয়েলস। কিন্তু ফেরার আগে ৮৪ বলে ৬ চার ও ৩ ছক্কায় ৮১ রানের ঝড়ে ইনিংসের গতিপথ নির্ধারণ করে দেন হোপ।

মাঝপথে হাল ধরেন শিমরন হেটমায়ার। তাকে সঙ্গ দিতে কাপ্তান রোভম্যান ব্যর্থ হলেও ২৭ বলে ২টি করে চার-ছক্কায় ৩৩ রানের গুরুত্বপূর্ণ ক্যামিও খেলে ফেরেন ফর্মের মগডালে থাকা এ ব্যাটসম্যান।

শেষদিকে স্বাগতিক বোলারদের ওপর স্টিম রোলার চালান রোস্টন চেজ ও ফাবিয়ান অ্যালেন। ব্যাটকে তলোয়ার বানিয়ে মাশরাফি-রুবেলদের কচুকাটা করেন তারা। ৩২ বলে ৮ চার ও ১ ছক্কায় ৪৮ করে ফেরেন অ্যালেন।

অন্তিমলগ্নে দ্রুত কিম পল ও সুনিল আমব্রিস ফিরলেও চেজ টর্নেডো চলেছেই। ৫১ বলে ৬ চার ও ১ ছক্কায় হার না মানা ৬৫ রান করেন এ মিডলঅর্ডার ব্যাটসম্যান। শেষ পর্যন্ত ৫০ ওভারে ৮ উইকেটে ৩৩১ রান করে ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

বিসিবি একাদশের হয়ে রুবেল হোসেন, মেহেদী হাসান রানা ও নাজমুল হোসেন অপু নেন ২টি করে উইকেট। তবে তারা সবাই ছিলেন খরুচে বোলার। সুবিধা করতে পারেননি মাশরাফিও।

উইন্ডিজের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচে বিসিবি একাদশের মোড়কে আসলে খেলছে জাতীয় দল। এ দলে মাশরাফি ছাড়াও খেলছেন তামিম ইকবাল। এশিয়া কাপে বাঁহাতের কব্জিতে চোট পেলে টুর্নামেন্ট শেষ হয়ে যায় তার। পরে নেট প্র্যাকটিসে আরেক দফা চোট পেলে জিম্বাবুয়ে সিরিজেও ছিটকে পড়েন। ইনজুরি এতটাই গুরুতর ছিল যে, ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজেও খেলতে পারেননি। সব মিলিয়ে আড়াই মাস পর মাঠে নেমেছেন তিনি।

খেলছেন ওয়ানডে সিরিজের স্কোয়াডে ডাক পাওয়া ইমরুল কায়েস, সৌম্য সরকার, মোহাম্মদ মিঠুন, রুবেল ও অপু। এখন ব্যাটিংয়ে কী করেন তারা-তাই দেখার।