সিলেটে একক প্রার্থী নির্বাচনে বিপাকে আ.লীগ-বিএনপি

139

সিলেট সংবাদদাতা: খেলাফত মজলিস ও জামায়েতের প্রার্থীর কারণে সিলেটে বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২৩ দলীয় জোট ঠিক করতে পারছে না একক প্রার্থী। আর আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন মহাজোটের সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে জাতীয় পার্টি ও বিকল্পধারার প্রার্থী। উৎসবমুখর পরিবেশে মনোনয়নপত্র জমা দেয়া হলেও এ নিয়ে রাজনৈতিক দলগুলোর নেতাদের মধ্যে রয়েছে উৎকণ্ঠা।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সিলেটে আসনগুলোতে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি একক প্রার্থী চূড়ান্ত করতে বিপাকে পড়েছেন। একদিকে যেমন দুই দলের দলীয় প্রার্থীদের চাপ অন্যদিকে নেতৃত্বাধীন জোটের শরিক দলগুলোর চাপও। সিলেট ১,৩ এবং চার আসনে আওয়ামী লীগের একক প্রার্থী থাকলেও সিলেট-৫ আসনে হাফিজ আহমদ মজুমদার এবং ৬ আসনে নুরুল ইসলাম নাহিদ প্রার্থী হলেও মহাজোটের প্রার্থী হিসেবে জাতীয় পার্টি থেকে মনোনয়ন দাখিল করেছেন সেলিম উদ্দিন। সিলেট-৬ আসনে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন বিকল্পধারার প্রেসিডিয়াম সদস্য শমসের মুবিন চৌধুরীও।

সিলেট-৬ আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রার্থী শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেন, আমাদের বিশাল দল, ভিন্ন মত হতেই পারে। ইলেকশনের প্রশ্নে সবাই এক।

সিলেট-৬ আসনে আরেক মনোনয়ন প্রত্যাশী বিকল্পধারার প্রেসিডিয়াম সদস্য শমসের মুবিন চৌধুরী বলেন, নির্বাচন করবো, আমার এলাকার মানুষের যথেষ্ট সাড়া পেয়েছি, আশীর্বাদ পেয়েছি।

জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরী বলেন, মহাজোটের প্রার্থী যেখানেই থাকবে আওয়ামী লীগের প্রতিটি কর্মীই তার পক্ষে কাজ করবে।

এদিকে, বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২৩ দলীয় জোটের শরিক জামায়াত সিলেট-৫ ও সিলেট-৬ আসন দুটি দাবি করেছে। অন্যদিকে খেলাফত মজলিস চায় সিলেট-২ ও ৩ আসন।

সিলেট-২ আসনে ২৩ দলীয় জোটের মনোনয়নপ্রত্যাশী মুনতাসির আলি বলেন, যেসমস্ত জায়গায় নির্বাচন করবো, সেখানে সরবভাবেই করবো। যেখানে নির্বাচন করবো না সেখানে জোটের প্রার্থীকে সহায়তা করার চেষ্টা করবো।

আর বিএনপি প্রার্থীরা বলছেন, নেতাকর্মীরা কখনো জামায়াত প্রার্থীকে নির্বাচনে চায় না।

সিলেট-৬ আসনে বিএনপির মনোনয়নপ্রত্যাশী ফয়সল আহমদ চৌধুরী বলেন, গোলাপগঞ্জ-বিয়ানীবাজারের মানুষ এইবার ধানের শীষ প্রতীক চায়, বিএনপি নেতৃবৃন্দকে চায়।

সিলেট-৫ আসনে বিএনপি মনোনয়নপ্রত্যাশী মামুনুর রশিদ বলেন, বিএনপি নেতাকর্মীরা গত দুই যুগ ধরে জামায়াতের নেতাদের থেকে কোনও ধরণের সামাজিক সম্পর্ক নেই।