‘ফখরুল সরকারের বিরুদ্ধে বিবৃতি দিতে দিতে গলার অসুখ করে ফেলেছেন’

333

ঢাকা সংবাদদাতা: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, দেশের উন্নয়ন করা, জনগণের জীবনমান উন্নয়ন করাই আওয়ামী লীগের কাজ। আর বিএনপি ক্ষমতায় এলে লুটপাটে ব্যস্ত থাকে। দেশের মানুষের টাকা আত্মসাত করে বিদেশে পাচার করে।

তিনি আজ ঠাকুরগাঁও স্কুল মাঠে স্থানীয় আওয়ামী লীগ আয়োজিত এক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। জিয়া পরিবার এতিমের টাকা আত্মসাত করে মন্তব্য করে শেখ হাসিনা বলেন, বিদেশ থেকে এতিমদের সহায়তায় টাকা এসেছিল। সেই টাকা খালেদা জিয়া ও তার ছেলে আত্মসাত করেছে।

আওয়ামী লীগের রাজনীতি উন্নয়নের আর বিএনপির রাজনীতি লুটপাটের উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, খালেদা জিয়ার ছেলেরা ৯৮০ কোটি ২০ লাখ আত্মসাত করে বিদেশে পাচার করেছিল। ধরাও পড়েছে। সেই টাকা দেশে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা চলছে।

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সমালোচনা করে শেখ হাসিনা বলেন, তিনি শুধু বক্তব্য ও সরকারের সমালোচনায় ব্যস্ত। আওয়ামী লীগ ও সরকারের বিরুদ্ধে বিবৃতি দিতে দিতে গলার অসুখ করে ফেলেছেন। কিছুদিন পরপর বিদেশে গিয়ে চিকিৎসা করাতে হয়। তিনি বলেন, মির্জা ফখরুল বিমান মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে থাকার সময় কোনো উন্নয়ন করেননি। ব্যাপক লুটপাট করেছেন।

আওয়ামী লীগের সময়কার নানা উন্নয়নের ফিরিস্তি তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী। বলেন, আমরা সারাদেশে রেলের একটি নেটওয়ার্ক গড়ে তোলেছি। রেলের সামগ্রিক উন্নয়ন করেছি। ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ পৌছে দিয়েছি। স্বাস্থ্যসেবা জনগণের দোড়গোড়ায় পৌছে দিয়েছি। আমাদের দায়িত্ব উন্নয়নে ছোঁয়া ঘরে ঘরে পৌছে দেওয়া।

সরকারের ধারাবাহিকা আছে বলেই আজ উন্নয়ন করা সম্ভব হচ্ছে মন্তব্য করে তিনি বলেন, নৌকায় ভোট দিয়েছিলেন বলেই উন্নয়ন হয়েছে। দেশ সমৃদ্ধির দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। তিনি আগামী নির্বাচনে ফের আওয়ামী লীগকে ভোট দিয়ে আহবান জানান। এসময় সর্বস্তরের জনগণ হাত তুলে আগামী নির্বাচনে নৌকায় ভোট দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেন।

জনসভায় আরও বক্তব্য দেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলী, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।