ঘরে ঢুকে মুসলিম বিধবাকে ধর্ষণ

245

ঢাকা সংবাদদাতা: নোয়াখালীর হাতিয়ার চরকিং ইউনিয়নের দক্ষিণ গামছাখালী গ্রামে ঘরে ঢুকে জোরপূর্বক এক বিধবা মুসলিম নারীকে (৩৯) ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় শ্রীবাস দেবনাথ (৪০) নামে এক ফেরিওয়ালাকে আটক করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার চরকিং ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় নির্যাতিতা নারী একই দিন রাতে নিজেই বাদী হয়ে অভিযুক্ত ব্যক্তির বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন।

আটক শ্রীবাস দেবনাথ উপজেলার নলচিরা ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের ফজর মাঝি এলাকার সুনীল দেবনাথের ছেলে।

মামলার বরাত দিয়ে হাতিয়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) কাঞ্চন কান্তি দাস জানান, আটককৃত ফেরিওয়ালা সাইকেলে ফেরি করে গ্রামের বাড়িতে বাড়িতে বাদাম, মোলার গোল্লা বিক্রি করত। বৃহস্পতিবার দুপুরে সে ফেরি করতে যায় চরকিং ইউনিয়নের ওই এলাকায়। ওই বিধবা নারীর মা ওষুধ কিনতে পাশের বাজারে গিয়েছিলেন। তার ছেলে বাহিরে কাজে ছিলেন।

ফেরিওয়ালা বিধবা নারীকে ঘরে একা পেয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। এক পর্যায়ে বিধবা নারীর চিৎকারে বাড়ির পাশের লোকজন এসে ধর্ষককে আটক করে পুলিশে সোপর্দ।

তিনি আরও বলেন, এ ব্যাপার নির্যাতিতা নিজেই বাদি হয়ে মামলা করেছেন। শুক্রবার ওই নারীকে মেডিকেল টেস্টের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হবে এবং গ্রেফতার আসামিকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হবে।