করোনা ভ্যাকসিনের চূড়ান্ত অনুমোদন পেলো চীন

688

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসে লণ্ডভণ্ড গোটা পৃথিবী। অদৃশ্য এই ভাইরাস মোকাবেলায় দিশেহারা গোটা বিশ্ব। প্রতিদিনই মৃত্যুর মিছিলে ঠাই হচ্ছে হাজারো মানুষ। এমন পরিস্থিতিতে এই ভাইরাস মোকাবেলায় ভ্যাকসিন তৈরিতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে বেশ কয়েকটি দেশ। তবে সবার আগে চীনের তৈরি ভ্যাকসিনই চূড়ান্ত অনুমোদন পেলো।

এই ভাইরাস মোকাবেলায় বিশ্বের শতাধিক গবেষণা প্রতিষ্ঠান ভ্যাকসিন তৈরির চেষ্টা করছে। এর মধ্যে অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিন এগিয়ে আছে বলে গত কয়েকদিন আগে জানিয়েছিলো বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

কিন্তু সবাইকে ছাড়িয়ে এবার করোনার ভ্যাকসিনের চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে চীন। সোমবার (২৯ জুন) এ খবর দিয়েছে ইয়াহু নিউজ। খবরে বলা হয়েছে, দেশটির সেনাবাহিনীর গবেষণা শাখা এবং স্যানসিনো বায়োলজিকসের (৬১৮৫.এইচকে) তৈরি একটি কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন মানব শরীরে প্রয়োগের অনুমতি পেয়েছে।

তবে আপাতত ভ্যাকসিন শুধুমাত্র সেনাবাহিনীর মধ্যে ব্যবহার করা হবে। স্যানসিনো বলেছে, চীনের সেন্ট্রাল মিলিটারি কমিশন গত ২৫ জুন এডি৫-এনকোভ ভ্যাকসিনটি সৈন্যদের দেহে এক বছরের জন্য প্রয়োগের অনুমোদন দিয়েছে। স্যানসিনো বায়োলজিকস এবং একাডেমি অফ মিলিটারির একটি গবেষণা ইনস্টিটিউট যৌথভাবে ভ্যাকসিনটি তৈরি করেছে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, সোমবার স্যানসিনো বায়োলজিকস এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ভ্যাকসিনটি চীনের বাইরেও পরীক্ষামূলক প্রয়োগ হচ্ছে। ইতিমধ্যে কানাডায় পরীক্ষামূলক প্রয়োগের অনুমোদন দেয়া হয়েছে। তবে চীনের লজিস্টিক সাপোর্ট বিভাগের অনুমোদনের আগে এটি ব্যাপকভাবে সাধারণ মানুষের শরীরে প্রয়োগ করা হবে না।

কোম্পানির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ভ্যাকসিনটি প্রথম ও দ্বিতীয় ধাপের পরীক্ষায় দারুণভাবে সফল হওয়ার পর এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

পৃথক সংবাদ

লন্ডনে ভালো নেই ক্যাব ড্রাইভাররা। কনজেশন চার্জ বৃদ্ধি, গণগণ পার্কিং টিকিট

লন্ডনে ভালো নেই ক্যাব ড্রাইভাররা। লকডাউন শিথিল হলেও আগের মত যাত্রী নেই। এদিকে গত সপ্তাহ থেকে লন্ডন সিটিতে কনজেশন চার্জ সাড়ে ১১ পাউন্ড থেকে বাড়িয়ে ১৫ পাউন্ডে উন্নীত করা হয়েছে। ক্যাব ড্রাইভাররা বলছেন, জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করলেও আগের মত উপার্জন হয়না।

Posted by London Bangla voice on Monday, 29 June 2020