ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে হামলার দায় স্বীকার করল সন্ত্রাসী টেরেন্ট

259

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: অবশেষে নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে দুটি মসজিদে সন্ত্রাসী হামলা চালিয়ে ৫১ মুসলিমকে হত্যার দায় স্বীকার করেছে সেই সন্ত্রাসী ব্রেন্টন টেরেন্ট। গত বছর ওই হামলা চালিয়ে সে বেশ কয়েকজন বাংলাদেশিসহ মোট ৫১ জন মুসলিমকে হত্যা করে। এ সময় ওই দুটি মসজিদে মুসল্লিরা নামাজ আদায় করছিলেন। সেখানে প্রবেশ করে সে এলোপাতাড়ি গুলি চালায়। আর সেই দৃশ্য ফেসবুকে লাইভ সম্প্রচার করে। এতে ৫১ জন মুসল্লিকে হত্যার দায় স্বীকারের পাশাপাশি অন্য ৪০ জনকে হত্যাচেষ্টার কথা স্বীকার করেছে ব্রেন্টন টেরেন্ট। একই সঙ্গে স্বীকার করেছে এক দফা সন্ত্রাসের অভিযোগ। এর আগে সে অভিযোগ অস্বীকার করেছিল।

এ অবস্থায়ই জুনে তার বিচার হওয়ার কথা ছিল। এ খবর দিয়েছে অনলাইন বিবিসি।

করোনা ভাইরাস সংক্রমণ আতঙ্কে নিউজিল্যান্ড এখন লকডাউন। এ অবস্থায় আজ বৃহস্পতিবার ক্রাইস্টচার্চ হাই কোর্টে ব্রেন্টন টেরেন্ট ওই অভিযোগ স্বীকার করে। তবে এ সময় আদালতে শুনানিতে কোনো সাধারণ মানুষকে উপস্থিত থাকতে দেয়া হয় নি। তবে মসজিদ দুটির প্রতিনিধিদের উপস্থিত থাকতে দেয়া হয়। বিচারক ক্যামেরন ম্যান্ডার বলেছেন, এটা দুঃখজনক যে, করোনা ভাইরাসের কারণে বিধিনিষেধে নিহত ও আহতদের পরিবারের সদস্যরা আদালতে উপস্থিত হতে পারেন নি, যখন অপরাধী তার দোষ স্বীকার করেছে।