এ অঞ্চলে মার্কিন উপস্থিতি শেষ হওয়ার সময় শুরু: বিপ্লবী গার্ডস

90

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ইহুদিবাদী ইসরাইলের মোকাবেলায় সক্রিয় সব প্রতিরোধকামী বাহিনীকে শক্তিশালী করাই ছিল ইরানের নিহত জেনারেল কাসেম সোলাইমানির মূল মিশন।

বিপ্লবী গার্ডসের মুখপাত্র রামেজান শরিফ এমন দাবিই করেছেন। তিনি বলেন, প্রতিরোধকামী শক্তিগুলোর কারণেই এ অঞ্চলে সব মার্কিন ষড়যন্ত্র ব্যর্থ হয়েছে।-খবর পারস টুডের

বৃহস্পতিবার কাসেম সোলাইমানির চল্লিশা উপলক্ষে ইরানের উর্মিয়ে শহরে দেয়া বক্তৃতায় রামেজান শরিফ বলেন, মার্কিন সন্ত্রাসী হামলায় কাসেম সোলাইমানির হত্যাকাণ্ডের মধ্য দিয়ে এ অঞ্চলে মার্কিন উপস্থিতি শেষ হওয়ার সময় শুরু হয়ে গেছে।

প্রতিরোধকামী শক্তিগুলোর কমান্ডারদের হত্যা করে শত্রুদের পরাজয় রোধ করা যাবে না বলেও উল্লেখ করেন তিনি। তার মতে, এ অঞ্চলে আধিপত্য বিস্তারের চেষ্টা চালাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। ইহুদিবাদী ইসরাইলকে নিরাপত্তা দেয়ার দায়িত্ব নিয়েছে তারা। তবে প্রতিরোধকামী কমান্ডারদের হত্যা করার ফলে মার্কিনিদের এসব ষড়যন্ত্র কখনই সফল হবে না।

এদিকে যুক্তরাষ্ট্র ও ইসরাইল সামান্য ভুল করলেও তাদের ওপর হামলা চালাতে প্রস্তুত বলে জানিয়েছে ইরান। বৃহস্পতিবার রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে দেয়া ভাষণে বিপ্লবী গার্ডসের প্রধান মেজর জেনারেল হোসেন সালামি এমন আভাস দিয়েছেন।

দেশটির শীর্ষ জেনারেল কাসেম সোলাইমানি হত্যার চল্লিশতম বার্ষিকীতে ভাষণ দেন তিনি। বললেন, যদি আপনারা সামান্য ভুলও করেন, তবে দুই দেশেই হামলা করা হবে।

গত ৩ জানুয়ারি বাগদাদ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে বের হওয়ার সময় ইরাকি মিলিশিয়া কমান্ডার আবু মাহদি আল-মুহান্দিসের সঙ্গে নিহত হন কাসেম সোলাইমানি।

এর আগে বিপ্লবী গার্ডসের মুখপাত্র রামেজান শরিফ বলেন, জেরুজালেমকে মুক্ত করার পথকে সহজ করে দিয়েছে সোলাইমানি হত্যা।

তিনি বলেন, সোলাইমানি ও মুহান্দিস মার্কিন কাপুরুষোচিত হামলায় নিহত হয়েছেন, যা জেরুজালেম মুক্ত করার পথ তৈরি করে দিয়েছে।

বৃহস্পতিবার হিজবুল্লাহ নেতা সাইয়েদ হাসান নাসরাল্লাহর একটি সাক্ষাৎকার প্রকাশ করেছে ইরানি রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন। এতে সোলাইমানির সঙ্গে তার ঘনিষ্ঠ সম্পর্কের কথা বলেন তিনি। এ ছাড়া হিজবুল্লাহর রকেট ভাণ্ডার তৈরিতে সোলাইমানির সহায়তার কথা বলেন হাসান নাসরাল্লাহ।

১৯৮২ সালে হিজবুল্লাহ আন্দোলন প্রতিষ্ঠা করেছিল বিপ্লবী গার্ডস। এর পর থেকে তারা ইরানের গুরুত্বপূর্ণ আঞ্চলিক সামরিক মিত্রের ভূমিকা পালন করে আসছে।