‘আমি এই লাইনে ১৩ বছর; মানুষ খুনও করছি’

122

নিজস্ব সংবাদদাতা: রয়েল পরিবহনের কাঁচপুর কাউন্টারের একজন কাউন্টার স্টাফ বাস যাত্রীদের হুমকি দিয়ে বলেন,আমি গাড়ীর লাইনে ১৩ বছর; এই লাইনে মানুষ খুনও করছি, এই পর্যন্ত বহু মানুষ সাইজ করেছি’।
ঢাকা থেকে মনোহরদীগামী রয়েল পরিবহনের বাস যাত্রীরা কাঁচপুর কাউন্টারে অতিরিক্ত সময় বাস আটকিয়ে রাখার প্রতিবাদ করায় কাউন্টার স্টাফ তাদের এই হুমকি প্রদান করেন। এ সময় সে সুমন নামের এক যাত্রীর গায়ে হাত তোলেন বলে উক্ত যাত্রী আভিযোগ করেন।

প্রত্যক্ষ বাস যাত্রীরা অভিযোগ করে বলেন, কাঁচপুর কাউন্টারের কাউন্টার স্টাফ গাড়ীটি কোন কারণ ছাড়াই ১৫ মিনিট বসিয়ে রাখে। এর প্রতিবাদ করলে সে কাউন্টার থেকে ৬/৭ জনকে সাথে নিয়ে এসে যাত্রীদের গায়ে হাত তোলে ও শাসিয়ে যায়। এ সময় এক যাত্রী গোপনে তার ছবি তুলে রাখেন।
পরে শামীম নামের উক্ত গাড়ীর হেলপারকে যাত্রী মারধরকারীর নাম জিজ্ঞাস করলে সে ভয়ে নাম প্রকাশ করে নি।

জানা যায়, সায়েদাবাদ থেকে শুরু করে যাত্রবাড়ী, সাইনবোর্ড, চিটাগাং রোড, কাঁচপুর, গাউছিয়ায় ২ স্টপেজ, মাধবদী, পাঁচদোনা, ভেলানগর, ইটাখোলাসহ আরও কয়েকটি ৪/৫ এর অধিক স্টপেজ কথিত কাউন্টার গুলোর প্রত্যেকটিতে কমপক্ষে ৫ মিনিটের অধিক সময় ধরে বাস বসিয়ে রাখা হয়। তাই ঢাকা থেকে মনোহরদীর এক সোয়া ঘন্টার রাস্তা ৩ গন্টায় যেতে হয়। গাড়ী ভাড়া অনেক অথচ অধিকাংশ গাড়ী এখন লক্কর ঝক্কর। যদিও এই লাইনে মনোহরদী পরিবহন ও রয়েল পরিবহন তাদের যাত্রা শুরু করার সময় ভালো গাড়ী দিয়ে শুরু করেছিল। নানা অনিয়মের কারনে এখন বাস মালিকরা তাদের ভালো গাড়ী এই লাইন থেকে উঠিয়ে নিয়েছেন।